সকাল ১০:৪২ মঙ্গলবার ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ২৯শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

হোম ফিচার পুলিশের সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টে হামলা

পুলিশের সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টে হামলা

লিখেছেন sayeed
Spread the love

পুলিশের সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টে হামলার ঘটনা ঘটেছে। শুধু তাই নয়, ক্যাপিটল হিল ভবনের ভেতরে তাণ্ডব চালানোর সময় দাঙ্গাকারীদের সঙ্গে সেলফিও তুলেছে কোনো কোনো পুলিশ সদস্য।

বুধবারের নজিরবিহীন ওই ঘটনার বেশ কিছু ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। মার্কিন গণতন্ত্রের কেন্দ্রে ন্যক্কারজনক এই হামলার পর ওয়াশিংটন পুলিশপ্রধানের পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি।

একই সঙ্গে পুলিশের বিরুদ্ধে ট্রাম্প সমর্থক শ্বেতাঙ্গদের প্রতি কোমল ব্যবহার ও কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর কঠোর আচরণের অভিযোগও উঠেছে। পুলিশের এই চরম বৈষম্যমূলক আচরনের তীব্র সমালোচনা করেছে মার্কিন সিভিল সোসাইটি, অধিকারকর্মী ও মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয় সত্যায়নের দিন বুধবার সিনেটরদের জিম্মি করতে ক্যাপিটল হিলে হামলা চালায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকরা। পুলিশকে অগ্রাহ্য করেই প্রবেশ করে ভবনের ভেতরে।

সিনেটরদের রক্ষায় সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। এ সময় হামলাকারী ও পুলিশের মধ্যে সংঘাত ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। চলে গুলি পালটা গুলি। এতে নিহত হন চার ট্রাম্প সমর্থক। ঘটনায় আহত হন এক ডজনেরও বেশি পুলিশ কর্মকর্তা।

তবে এদিন পয়েন্টে পয়েন্টে মোতায়েন শত শত পুলিশের নিরাপত্তা ব্যূহ ভেদ করে হাজার হাজার ট্রাম্প সমর্থক কীভাবে ক্যাপিটল হিলের ভেতরে প্রবেশ করল আর কীভাবে হামলা চালাল-তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এটাকে পুলিশের চরম ব্যর্থতা বলে অভিহিত করেছেন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। এই ঘটনাকে ‘বিব্রতকর’ অভিহিত করেছেন ওহাইওর আইনপ্রণেতা টিম রায়ান। একে ক্যাপিটল পুলিশের পরিকল্পনা ও কৌশলের ঘাটতি বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More