রাত ২:১২ সোমবার ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

হোম দেশ নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্টকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্টকে মারধর: হাজী সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা

লিখেছেন kajol khan
noubahini_durantobd
Spread the love

 

রাজধানীতে নৌবাহিনীর এক লেফটেন্যান্টকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে ঢাকার সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে এরফান সেলিমকে প্রধান আসামি করে ধানমন্ডি থানায় মামলাও হয়েছে।

গতকাল রোববার (২৫ অক্টোবর) সন্ধ্যার পর ধানমন্ডিতে কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ধানমন্ডি থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন, লেফটেন্যান্ট ওয়াসিক আহমেদ খানকে মারধরের ঘটনায় আজ সকালে মামলা হয়েছে। মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে এরফান সেলিমকে।

লেফটেন্যান্ট ওয়াসিক ঢাকায় বিএনএস হাজী মহসীন নৌবাহিনী ঘাঁটিতে কর্মরত।

উল্লেখ্য, গতকাল রোববার সন্ধ্যায় বই কিনে স্ত্রীসহ মোটরবাইকে ফিরছিলেন লেফটেন্যান্ট ওয়াসিক। কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের স্টিকার লাগানো একটি গাড়ি তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এ সময় মোটরসাইকেল থামিয়ে নিজের পরিচয় দেন ওয়াসিক। গাড়ি (নম্বর ঢাকা মেট্টো– ঘ ১১-৫৭৩৬) থেকে নেমে দুই ব্যক্তি তাকে মারধর শুরু করেন। এ সময় তার স্ত্রীর গায়েও হাত তোলা হয় বলে অভিযোগ ওয়াসিকের।

পরে ঘটনাস্থলে লোকজন জড়ো হলে সংসদ সদস্যের গাড়ি ফেলে মারধরকারীরা পালিয়ে যান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে এমপির গাড়ি ও নৌবাহিনীর কর্মকর্তার মোটরসাইকেল ধানমন্ডি থানায় নিয়ে যায়। ঘটনার সময় মোবাইল ফোনে একটি ভিডিও ধারণ করেছে এক প্রত্যক্ষদর্শী। এরই মধ্যে ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, আহত নৌবাহিনীর কর্মকর্তা নিজেকে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিক বলে পরিচয় দিয়ে ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে ধানমণ্ডি থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন, ওই গাড়িটি সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের। ঘটনার সময় তিনি গাড়িতে ছিলেন না। তার ছেলে এরফান সেলিম, নিরাপত্তারক্ষীসহ ৫-৬ ছিলেন।

এ ঘটনায় এরফান সেলিমকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের নামে একটি মামলা করেছেন লেফটেন্যান্ট ওয়াসিক।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More