দুপুর ২:২৩ সোমবার ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ১৫ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

হোম বিনোদন বাথটাবে খোলামেলা অলিভিয়া, উত্তাল নেটদুনিয়া!

বাথটাবে খোলামেলা অলিভিয়া, উত্তাল নেটদুনিয়া!

লিখেছেন sayeed
Spread the love

নিরন্তর প্যাঁচ কষা ভিলেন বৌমা নয়, গ্রামের মিষ্টি মেয়েও নয়, এ অলিভিয়া অন্য রকম। সাহসিনী রূপে, উষ্ণ শরীরী আবেদনে মোহময়ী। দুধ সাদা ফেনিল স্বপ্ন মাখা সাবানের ওম। তার মধ্যে থেকেই আবরণহীন শরীরের উঁকিঝুঁকি। মেকআপের প্রলেপহীন, স্বাভাবিক সৌন্দর্যে আকর্ষণীয়। মাথার উপরে চুড়ো করে তোলা একগুচ্ছ চুলের ক্যাজুয়াল হাতখোঁপা।

টেলি সিরিয়ালের চেনা মেকআপের চেহারা আমূল বদলে এ যেন এক্কেবারে অন্য রূপে অলিভিয়া। তুলতুলে সাদা বিছানায়, ঘোর লাগা চোখে আপনারই মনে ঝড় তোলার অপেক্ষায়। যা দেখে ঝড় উঠেছে নেট দুনিয়ায়। নেটদুনিয়ায় ঝড় তুলতে আর কী চাই! একদম ভিন্ন আঙ্গিকের অলিভিয়া ইতোমধ্যে বিনোদন জগতে চর্চার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছেন তিনি।

সাহসী ফটোশুট মানেই নেটদুনিয়ার হাজারো প্রশ্নের মুখে পড়া। সে অভিজ্ঞতা হয়েছে বহু অভিনেত্রীরই। অলিভিয়া তাকে আমল দিতে নারাজ। বরং সমালোচনা তুড়ি মেরে উড়িয়ে নিজের সবটুকু লাস্য নিয়ে ধরা দিয়েছেন অঞ্জন ধাউড়ির ক্যামেরায়। পর্দায় বেশির ভাগ সময়েই দেখা গিয়েছে খল চরিত্রে। ‘সীমারেখা’র টিয়া কিংবা ‘জয়ী’র মালিনী রূপে দর্শকদের মনে জ্বালা ধরিয়েও মজিয়ে দিয়েছেন।

অলিভিয়ার নিজেরও মিষ্টি নায়িকা হওয়ার চেয়ে কুটিল চরিত্রই ঢের বেশি পছন্দের। ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই’র ওয়েব সিরিজ ‘মন্টু পাইলটে’ যে ছকভাঙা চরিত্রে অভিনয় করেছেন, তা একাধারে বেশ কঠিন চরিত্রও বটে। বাঁধাধরা চরিত্রের ইমেজ ভেঙে বেরোতে পেরে খোলা হাওয়ায় নিঃশ্বাস নিয়েছেন লাস্যময়ী অভিনেত্রী।

বডি শেমিং পছন্দ নয় একেবারেই। নিজে করেন না, বরদাস্তও করেন না কখনো। ‘মন্টু পাইলট’তে কাজ করার সময়ে নানা রকম অভিজ্ঞতায় ভরে গিয়েছে ঝুলি। দুষ্টুমিষ্টি লুক ভেঙেচুরে উদ্ভিন্নযৌবনা যৌনকর্মীর চরিত্রে নিজেকে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে হয়েছে। তার প্রস্তুতি সহজ ছিলো না একেবারেই। আর তাই এ চরিত্রটাও তার কাছে স্পেশাল হয়ে থেকে যাবে।

এই প্রথমও নয়।ইমেজ ভাঙা দুঃসাহসী ছবিতে আগেও বহুবার দেখা গিয়েছে তাকে। নানা গ্ল্যামারাস সাজে সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের চোখে নিজেকে মেলে ধরতে নিয়মিত সেখানে ছবি পোস্ট করেন অলিভিয়া।

‘শি ইজ মোর দ্যান হার বিউটি, শি ক্যান বি এনিথিং’, বললেন অলিভিয়া। আগল নেই স্পষ্ট কথায়। নেই সাহসী ফটোশুটে নিয়ে এতটুকু ছুঁৎমার্গ। বরং জোরালো কণ্ঠে বুঝিয়ে দেন নিজের আবেগ, আত্মবিশ্বাসে বিন্দুমাত্র লাগাম দিতে তিনি নারাজ।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More