সন্ধ্যা ৭:২৫ শনিবার ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

হোম দেশ ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আ. লীগ নেতার মারপিটে বাবা নিহত!

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আ. লীগ নেতার মারপিটে বাবা নিহত!

লিখেছেন sayeed
Spread the love

সাতক্ষীরা: ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান সরদার এবং তার সমর্থকদের মারপিটে নিহত হয়েছেন লুৎফর নামে এক মাছ ব্যবসায়ী। গত সোমবার রাতে সাতক্ষীরার তালা সদরের নলবুনিয়া বিলে এ ঘটনা ঘটে। নিহত লুৎফর নিকারী (৬৫) তালা সদরের জেয়ালা নিকারীপাড়ার মৃত আইজুল নিকারীর ছেলে।

এ প্রসঙ্গে তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সরদার মশিয়ার রহমানকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তীতে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিহতের ভাতিজা রুহুল আমিন বলেন, নলবুনিয়া বিলের সরকারি খালে মাছ ধরছিলেন সেলিম নিকারী। ওই খালের সঙ্গে ভাইস চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমানের মাছের ঘেরের ভেড়ী রয়েছে। খাল থেকে ধরে সেলিমকে আটকে রাখেন মশিয়ারের সহযোগী রনি। এরপর সরদার মশিয়ার ঘটনাস্থলে পৌঁছে বারুইহাটি গ্রামের রনি, ওই গ্রামের মোসলেম শেখের ছেলে তুহিন শেখসহ তিনজন মিলে তাকে মারপিট করেন।

ছেলেকে মারপিটের ঘটনা শুনে বাবা লুৎফর নিকারী ঘটনাস্থলে যান। সেখানে যাওয়া মাত্রই সরদার মশিয়ার, তুহিন ও রনি তাকেও মারপিট করেন। পরে গ্রামবাসী গিয়ে লুৎফর রহমানকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। সেলিমকেও তার পাশে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়।

তিনি আরও বলেন, সেলিম নিকারী বর্তমানে তালা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তার কানের পর্দা ফেটে গেছে। আমরা এই হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই। এই সন্ত্রাসী পরিবারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। এ ঘটনায় রাতেই পুলিশের জরুরি সেবা সার্ভিস ৯৯৯ এ ফোন দেয় স্থানীয়রা। তারপর রাতেই অভিযান চালিয়ে সরদার মশিয়ারকে আটক করে পুলিশ।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করে মরদেহ নিয়ে মিছিল করে তালা থানা ঘেরাও করে গ্রামবাসীরা। এ সময় হাজার হাজার গ্রামবাসী ‘খুনিদের ফাঁসি চাই’ স্লোগান দিতে থাকেন। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে বিচারের আশ্বাস দিলে গ্রামবাসী চলে যান।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More