রাত ১১:৩৫ শনিবার ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

হোম দেশ ছেলের লাঠির আঘাতে হাসপাতালে ভর্তি মা

ছেলের লাঠির আঘাতে হাসপাতালে ভর্তি মা

লিখেছেন adib jamal
Spread the love

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে মেয়ের বসত বাড়ি নির্মাণ কাজ সহযোগীতা দিতে গিয়ে ছেলের লাঠির আঘাতে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন জমিনা বেগম নামে এক বৃদ্ধা মা। হতভাগ্য ওই মাকে মারধরের ঘটনায় বিচার চেয়ে ভাই, ভাইয়ের স্ত্রী, ভাইয়ের শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে লালমনিরহাটের পাটগ্রাম থানায় অভিযোগ করেছেন ওই বৃদ্ধার বড় ছেলে নজরুল ইসলাম।

শনিবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের পূর্ব বটতলী বাজার ডাঙ্গীরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,ওই এলাকার মৃত তফির উদ্দিনের ছয় ছেলে ও এক মেয়ের মধ্য বেশ কিছু দিন ধরে বাবার কাছ থেকে প্রাপ্ত জমির ভাগা-ভাগি নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছে আসছিল।

ছয় ভাইয়ের মধ্যে পাঁচভাই তাদের বোন মালেকা বেগমকে সুবিধামত স্থানে বসতবাড়ি তৈরির জন্য প্রস্তাব দিলেও শুধুমাত্র মোজাফফর আলী নামের এক ভাই এতে বাঁধা দেয়। বোন মালেকা বেগম শনিবার বিকেলে তার পাঁচভাই ও মা জমিনা বেগমকে (৬০) সাথে নিয়ে বাবার কাছ থেকে প্রাপ্ত জমিতে বাড়ি তৈরির চেষ্টা করতে গেলে অপর ভাই মোজাফফর আলী ও তার লোকজন দলবদ্ধ হয়ে মালেকাসহ অন্যদের উপর হামলা হামলা চালায়। মেয়েকে বাঁচাতে বৃদ্ধা মা জমিনা বেগম এগিয়ে এলে মোজাফফর আলী লাঠি দিয়ে তার বৃদ্ধা মা জমিনা বেগমও মারধর করেন। এ সময় মোজাফফর ও তার স্ত্রী, শ্বশুর ও শাশুড়িসহ তার লোকজনের হামলায় বৃদ্ধা জমিনা বেগম, মালেকা বেগমসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। স্থানীয়রা ও গ্রাম পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে পাটগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করান। মায়ের অবস্থা গুরুতর বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এ ঘটনায় ওই বৃদ্ধা জমিনা বেগমের ছেলে নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে রাতে মাকে মারধরের ঘটনায় বিচার চেয়ে ভাই, ভাইয়ের স্ত্রী, ভাইয়ের শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে পাটগ্রাম থানায় অভিযোগ করেছেন।

নজরুল ইসলাম বলেন, তার ছোট ভাই তার বোনের জমি দখল করার চেষ্টা করেন। এতে বাঁধা দিতে গেলে তার ছোট ভাই মোজাফফর তার মাসহ অন্যদের মারধর করেন।

তিনি আরও জানান, এর আগেও তার ওই ছোট ভাই মোজাফ্ফর আলী তার বৃদ্ধা মাকে মারধর করে ছিলো।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত বলেন, ভাই বোনদের মধ্যে জমির ভাগাভাগি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে আগেও একটি মামলা হয়েছে। আজ আবারও তাদের মধ্যে মারামারি হয়েছে এবং এ ঘটনায় আরও একটি অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More