বিকাল ৪:৩১ শনিবার ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

হোম দেশ ‘লুঙ্গি পরে কোমর বেঁধে’ রাস্তা মেরামত করলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

‘লুঙ্গি পরে কোমর বেঁধে’ রাস্তা মেরামত করলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

লিখেছেন মামুন শেখ
'লুঙ্গি পরে কোমর বেঁধে' রাস্তা মেরামত করলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা-durantobd.com
Spread the love

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তা সংস্কার করলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। রোববার (১২ জুলাই) সঞ্জিত ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের রাস্তা সংস্কারের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়।

এলাকাবাসীর দুর্ভোগ কমাতে শুক্রবার (১০ জুলাই) বিকেল থেকে রোববার (১২ জুলাই) পর্যন্ত রাস্তা মেরামতের কাজ করেন তারা।

তাদের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর ওই সড়কের ভুক্তভোগীরা তাদের প্রশংসা করেন।

গৌরীপুর উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ রেলওয়ে এলাকার রাস্তার বেহাল দশা অনেক দিন থেকে। স্থানীয়দের দুর্ভোগের বিষয়টি ফেসবুকে প্রচার হলে মানুষের ভাঙা রাস্তা মেরামত করতে তাৎক্ষণিক উদ্যোগ নেন ঢাবির ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। খবর পেয়ে স্থানীয় অর্ধশত ছাত্রলীগের নেতাকর্মী স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত কাজে অংশ নেন।

উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জের সন্তান মো. মারিয়াম জামান খান সোহান তার ফেসবুকে দুর্ভোগের বিষয়টি তুলে ধরেন। তিনিও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্যসেন হলের ভিপি।

তিনি বলেন, ছোট ভাইদের ফেসবুক স্ট্যাটাসে স্থানীয়দের দুর্ভোগের বিষয়টি চোখে পড়লে ঘটনাস্থলে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস উপস্থিত হন। পরে সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. মোফাজ্জল হোসেন খানও হাজির হন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তার সংস্কার কাজ শুরু করলে সাধারণ মানুষও এতে যোগ দেন।

এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোফাজ্জল হোসেন খান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমিও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। আজকের ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ছাত্রলীগ। ওরা আর্তমানবতার সেবায় নিবেদিত, আমি আজ ছাত্রলীগের এমন কাজে গর্বিত। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা লুঙ্গি পরে কোমর বেঁধে রাস্তা মেরামতের কাজ করছেন। ওদের কাজ দেখে এলাকাবাসীও এগিয়ে আসছেন। এলাকাবাসীও তাদের কাজের প্রশংসা করেছেন।

You may also like

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More